Home / নতুন প্রযুক্তি / চতুর্থ প্রান্তিকে ২৯ মিলিয়ন আইফোন X

চতুর্থ প্রান্তিকে ২৯ মিলিয়ন আইফোন X

০১৭ সালের চতুর্থ প্রান্তিকে ২৯ মিলিয়ন আইফোন X সরবরাহ করেছে অ্যাপল।

সিঙ্গাপুরভিত্তিক বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ক্যানালিস-এর তথ্যানুসারে ছুটির মৌসুমে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া স্মার্টফোন মডেল হলো আইফোন X– খবর ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আইএএনএস-এর।

মঙ্গলবার ক্যানালিস-এর পক্ষ থেকে বলা হয়, “আরও একটি উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো সরবরাহকৃত ২৯ মিলিয়ন আইফোন X-এর মধ্যে ৭ মিলিয়ন সরবরাহ করা হয়েছে চীনে।”

“৯৯৯ মার্কিন ডলারের একটি ডিভাইস হিসেবে আইফোন X-এর কার্যক্ষমতা দারুণ, কিন্তু এই খাতের প্রত্যাশার চেয়ে কিছুটা কম,” বলেন ক্যানালিস বিশ্লেষক বেন স্ট্যানটন।

স্ট্যানটন আরও বলেন, “২০১৭ সালের নভেম্বরের শুরুতে চাহিদামতো পণ্য সরবরাহে ঝামেলার মধ্যে পড়ে অ্যাপল। কিন্তু নভেম্বরের শেষ ও ডিসেম্বর মাস জুড়ে উৎপাদনে বড় ধরনের পরিবর্তন এনেছে প্রতিষ্ঠানটি। এতে প্রান্তিকের শেষ ভাগে চাহিদা মেটানো এবং কিছু বাজারে চাহিদা ছাড়িয়ে যেতে পেরেছে তারা।”

ক্যানালিস আরও জানিয়েছে, ২০১৭ সালের চতুর্থ প্রান্তিকে আইফোন এসই, ৬এস, ৭ এবং ৮ মডেলগুলোর সরবরাহও ভালো হয়েছে।

চলতি সপ্তাহের শুরুতে কেজিআই সিকিউরিটিস-এর বিশ্লেষক মিং-চি কুয়ো বলেন, প্রত্যাশার তুলনায় চাহিদা কম থাকায় চলতি বছরের মাঝামাঝি আইফোন X-এর বিক্রি বাতিল করতে পারে অ্যাপল।

প্রথম সংস্করণের বিক্রি বন্ধ করলেও চলতি বছরের শেষ দিকে আইফোন X-এর নতুন সংস্করণ উন্মোচন করা হতে পারে বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আইএএনএস-এর।

কুয়ো বলেন, দাম কমিয়ে আইফোন X বিক্রি করবে না অ্যাপল। দাম কমালে প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য প্রিমিয়াম আইফোনগুলোর উপর এর প্রভাব পড়বে। কুয়ো’র ধারণা ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে মার্চ প্রান্তিকে ১৮ মিলিয়ন আইফোন X সরবরাহ করবে অ্যাপল।

২০১৮ সালের প্রথম প্রান্তিকে ১৮ মিলিয়ন আর দ্বিতীয় প্রান্তিকে ১৩ মিলিয়ন আইফোন X সরবরাহ করা হবে বলে ধারণা প্রকাশ করেছেন কুয়ো। আগে ধারণা করা হয়েছে প্রথম প্রান্তিকে ২০ থেকে ৩০ মিলিয়ন এবং দ্বিতীয় প্রান্তিকে ১৫ থেকে ২০ মিলিয়ন আইফোন X সরবরাহ হবে।

“আমরা ধারণা করছি ২০১৮ সালের মাঝামাঝি আইফোন X-এর সরবরাহ বন্ধ হবে, এতে ডিভাইসটির মোট সরবরাহ সংখ্যা দাঁড়াবে ৬২ মিলিয়ন। আগে ধারণা করা হয়েছিল এই সংখ্যাটি হবে ৮০ মিলিয়ন।”– কুয়ো।

“২০১৮ সালে নতুন আইফোন উন্মোচনের পর দাম কমিয়ে আইফোন X-এর বিক্রি চালিয়ে গেলে তা পণ্যের ব্র্যান্ড মূল্যের জন্য ক্ষতিকর হবে। এছাড়া কম মূল্যে আইফোন X বিক্রি করলে নতুন ৬.১ ইঞ্চি এলসিডি পর্দার আইফোন সরবরাহেও এর প্রভাব পড়বে,” যোগ করেন তিনি।

About DJ Rony

I Love LiveNetBD.Ga

Leave a Reply